শিরোনাম :
কোটা আন্দোলন : কক্সবাজারে আওয়ামীলীগ, জাসদ, জাতীয় পার্টির কার্যালয়, মসজিদ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাংচুর; ছাত্রলীগ ৪ নেতাকে মারধর কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিক্ষোভ মিছিল চট্টগ্রামে কোটা আন্দোলনে সংর্ঘষে নিহত ছাত্র আকরামের বাড়ী কক্সবাজারের পেকুয়ায় পেকুয়ায় দূর্যোগ প্রস্তুতি ও সাড়াদান বিষয়ক কর্মশালা ক্রিস্টাল মেথ আইস উদ্ধার পর্যটন শহরেও উত্তাপ ছড়ালো কোটা আন্দোলনকারীরা উল্টো রথযাত্রা মহোৎসব ১৫ জুলাই টেকনাফে জেন্ডার ও বিরোধ সংবেদনশীল সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ মিয়ানমারের বিকট শব্দে আতংকে টেকনাফবাসী টেকনাফে ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন

ইমন হত্যার বিচারের দাবীতে কক্সবাজারে বিক্ষোভ: আটক ২

নিউজ রুম / ৫ বার পড়ছে
আপলোড : বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১১:২০ অপরাহ্ন

বিডি প্রতিবেদক :
প্রতিশোধের জেরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে খুন হয়া ছাত্রলীগ নেতা ইমন হাসান (১৮) হত্যাকারীদের দাবীতে কক্সবাজার শহরে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করেছে জেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
শুক্রবার রাতে শহরের সদর থানার সম্মুখস্থ প্রধান সড়কে টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করা হয়। প্রায়ই দেড়ঘন্টা সড়ক অবরোধ করে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করে বিক্ষোভকারীরা। তবে তবে এখনো এঘটনায় কোন এজাহার পায়নি পুলিশ। কিন্তু ঈমন হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজন আটক করে সন্দহজনক হিসেবে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
ধৃতরা হলেন শহরের পেষকার পাড়ার ওয়াসিম (২২) ও মিজান (১৯)।
পুলিশ, ছাত্রলীগ ও নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, শুক্রবার রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিহতের মৃতদেহ কক্সবাজার আনা হয়। শনিবার সকালে প্রথমে শহরের টেকপাড়ায় ও পরে জিলংজা ইউনিয়নের মুক্তারকূলে নিহতের জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযার আগের সংক্ষিপ্ত সমাবেশে হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের দাবী করেছেন বক্তারা।
এর আগে শুক্রবার রাত ১০ টা থেকে সাড়ে ১১ টা পযন্ত বিক্ষোভ করে ছাত্রলীগ। পরে কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনিরুল গিয়াস ঘটনাস্থলে এসে আসামীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন এবং ইতিমধ্যে দুইজনকে আটক করার কথা । এরপর প্রশাসনের কাছে এই হত্যাকান্ডের সঠিক বিচার দাবী করে ছাত্রলীগের সভাপতি-সেক্রেটারির নির্দেশে বিক্ষোভ সমাবেশ বন্ধ করা হয়।
কক্সবাজার সদর থানার ওসি শেখ মুনিরুল গিয়াস বলেন, আমরা এখনো এজাহার পাইনি। এইকারণে সন্দেজনক ধৃত দুইজনকে ৫৪ ধারায় আদালতে পাঠিয়েছে। এছাড়া ঘটনার মূলহোতা আবদুল্লাহ খানকে গ্রেফতার রতে পুলিশের অভিযান চলমান রয়েছে।উল্লেখ্য বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১ টায় পৌরসভার বড় বাজারের ছালাম মার্কেটের সামনে ছাত্রীলগ নেতা ইমন হাসানকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে চমেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৩ টায় মারা যায়।


আরো বিভিন্ন বিভাগের খবর