শিরোনাম :
কোটা আন্দোলন : কক্সবাজারে আওয়ামীলীগ, জাসদ, জাতীয় পার্টির কার্যালয়, মসজিদ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাংচুর; ছাত্রলীগ ৪ নেতাকে মারধর কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিক্ষোভ মিছিল চট্টগ্রামে কোটা আন্দোলনে সংর্ঘষে নিহত ছাত্র আকরামের বাড়ী কক্সবাজারের পেকুয়ায় পেকুয়ায় দূর্যোগ প্রস্তুতি ও সাড়াদান বিষয়ক কর্মশালা ক্রিস্টাল মেথ আইস উদ্ধার পর্যটন শহরেও উত্তাপ ছড়ালো কোটা আন্দোলনকারীরা উল্টো রথযাত্রা মহোৎসব ১৫ জুলাই টেকনাফে জেন্ডার ও বিরোধ সংবেদনশীল সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ মিয়ানমারের বিকট শব্দে আতংকে টেকনাফবাসী টেকনাফে ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সহযোগি আওয়ামী লীগের সভাপতি, বহিস্কারের দাবি

নিউজ রুম / ৫ বার পড়ছে
আপলোড : বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:৫৫ অপরাহ্ন
?????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

বিডি প্রতিবেদক

কক্সবাজারে কুতুবদিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবরকে দল থেকে বহিস্কারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। জামায়াত-বিএনপির সাথে যোগসাজশ করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মারধরে অভিযোগ উঠে তার বিরুদ্ধে।
বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তাকে বহিস্কারের দাবি জানান তারা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন লেমশীখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম।
সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আশির দশকের দিকে কুতুবদিয়ায় বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের দল ফ্রিডম পার্টির সভাপতি ছিলেন বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর। যিনি প্রভাবশালী অদৃশ্য শক্তির ইশারায় স্থানীয় তৃণমূল আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে বিতর্কিত সাংগঠনিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। এসব কারণে ওই এলাকায় বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অধিকাংশ দলীয় প্রার্থী পরাজিত হয়েছে।
এছাড়া আওয়ামীলীগের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতাদের মরণোত্তর শোক সভা কিংবা কোনো কর্মসূচী পালন না করার অভিযোগ উঠে। এসব বিষয় নিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীরা কথা বললে তাদের মারধার ও হেনস্তা করার একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
তবে এসব অভিযোগ সত্য নয় বলে জানিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আওরঙ্গজেব মাতবর।
তিনি বলেন, সামনে কাউন্সিল নিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে তারা। আমি কখনো ফ্রিডম পার্টির রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম না।’
সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য শফিউল আলম কুতুবী, প্রাক্তন ছাত্রলীগ পরিষদের সভাপতি রমিজ আহমেদ কুতুবী, উত্তর ধুরুং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি অধ্যাপক শফিউল বশর, বড়ঘোপ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুব আলম, দক্ষিণ ধুরুং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহের হোসেন কোম্পানি, আওয়ামী লীগ নেতা সরওয়ার আলমসহ আওয়ামী লীগের শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।


আরো বিভিন্ন বিভাগের খবর