শিরোনাম :
কোটা আন্দোলন : কক্সবাজারে আওয়ামীলীগ, জাসদ, জাতীয় পার্টির কার্যালয়, মসজিদ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাংচুর; ছাত্রলীগ ৪ নেতাকে মারধর কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিক্ষোভ মিছিল চট্টগ্রামে কোটা আন্দোলনে সংর্ঘষে নিহত ছাত্র আকরামের বাড়ী কক্সবাজারের পেকুয়ায় পেকুয়ায় দূর্যোগ প্রস্তুতি ও সাড়াদান বিষয়ক কর্মশালা ক্রিস্টাল মেথ আইস উদ্ধার পর্যটন শহরেও উত্তাপ ছড়ালো কোটা আন্দোলনকারীরা উল্টো রথযাত্রা মহোৎসব ১৫ জুলাই টেকনাফে জেন্ডার ও বিরোধ সংবেদনশীল সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ মিয়ানমারের বিকট শব্দে আতংকে টেকনাফবাসী টেকনাফে ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন

আমরা একে অপরকে সহযোগিতা করছি: প্রধানমন্ত্রী

নিউজ রুম / ৩ বার পড়ছে
আপলোড : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:২৪ অপরাহ্ন

বিডি ডেস্ক :
জনগণের সামগ্রিক উন্নয়নে বাংলাদেশ ও ভারত একসঙ্গে কাজ করছে; এ ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও তিনি একে অপরকে সহযোগিতা করছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে গার্ড অব অনার গ্রহণ শেষে প্রধানমন্ত্রী এ সব কথা বলেন।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘ভারত আমাদের বন্ধু। আমি যখনই ভারতে আসি, এটা আমার জন্য খুবই আনন্দের। বিশেষ করে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারতের অবদানের কথা আমরা সবসময় স্মরণ করি।’প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের প্রধান লক্ষ্য হলো- সামগ্রিকভাবে আমাদের জনগণের উন্নয়ন, দারিদ্র্য বিমোচন এবং অর্থনীতির উন্নয়ন। এই ইস্যুতে আমি মনে করি আমাদের দুটি দেশ একসঙ্গে কাজ করছে। এতে শুধু ভারত ও বাংলাদেশের মানুষই নয়, সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার মানুষ উন্নত জীবন পেতে পারে। এটাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আমরা একে অপরকে সহযোগিতা করছি।’
এ সময় ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সহযোগিতার জন্য ভারতকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান সরকারপ্রধান। তিনি আরও বলেন, ‘ছয় বছর আমি এখানে ছিলাম। বন্ধুত্বের মাধ্যমে যেকোনো সমস্যা সমাধান সম্ভব।’
এদিন সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময় তার মন্ত্রীসভার সদস্যরা রাষ্ট্রপতি ভবনের ফোরকোর্টে রাষ্ট্রীয় রীতিতে শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানান।
এর আগে শেখ হাসিনাকে বর্ণাঢ্য মোটর শোভাযাত্রার মাধ্যমে রাষ্ট্রপতি ভবনের সামনে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর তার সম্মানে গান স্যালুট দেওয়া হয়। পরে প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে গতকাল নয়াদিল্লি গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে দিল্লির পালাম বিমানবন্দরে অবতরণ করে।


আরো বিভিন্ন বিভাগের খবর