শিরোনাম :
কোটা আন্দোলন : কক্সবাজারে আওয়ামীলীগ, জাসদ, জাতীয় পার্টির কার্যালয়, মসজিদ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাংচুর; ছাত্রলীগ ৪ নেতাকে মারধর কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিক্ষোভ মিছিল চট্টগ্রামে কোটা আন্দোলনে সংর্ঘষে নিহত ছাত্র আকরামের বাড়ী কক্সবাজারের পেকুয়ায় পেকুয়ায় দূর্যোগ প্রস্তুতি ও সাড়াদান বিষয়ক কর্মশালা ক্রিস্টাল মেথ আইস উদ্ধার পর্যটন শহরেও উত্তাপ ছড়ালো কোটা আন্দোলনকারীরা উল্টো রথযাত্রা মহোৎসব ১৫ জুলাই টেকনাফে জেন্ডার ও বিরোধ সংবেদনশীল সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ মিয়ানমারের বিকট শব্দে আতংকে টেকনাফবাসী টেকনাফে ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন

চকরিয়ায় অটোরিকশা ছিনতাইঃহাসপাতালে চালকের মৃত্যু

নিউজ রুম / ৫ বার পড়ছে
আপলোড : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৬:০৯ অপরাহ্ন

বিডি প্রতিবেদক চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়ায় খাবার খাওয়াইয়া অজ্ঞান করে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ছিনতাই করা হয়।পরে স্হানীয় পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠালে,সেখানে চালকের মৃত্যু হয়েছে।
গত রবিবার বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহত,চালক জাকের হোসেন (৫৫) উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের ৪ নাম্বার ওয়ার্ডের মাইজ কাকারা গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে।
জানা গেছে,নিহত হওয়া অটোরিকশা চালক জাকের হোসেন,গত ৩/৪ দিন আগে দেড় লক্ষ টাকার বিনিময়ে নুতন একটি অটোরিকশা ক্রয় করেন।পরে নিজেই অটোরিকশাটি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।বর্তমানে তিনি একজন পেশাদার অটোরিকশা চালক।
স্হানীয় পথচারীরা জানান,গত রবিবার বিকেলে চকরিয়া পৌরশহর থেকে ছিনতাইকারীর সিন্ডিকেটের ২জন যুবক অটোরিকশাটি ভাড়া করে মাইজঘোনা এলাকায় নিয়ে যায়।এসময় তাদের হাতে থাকা বিরাণী ভাতের খাবারের প্যাকেট খাওয়াইয়া অজ্ঞান করে অটোরিকশাটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়।এসময় কয়েক জন পথচারী তাকে দেখে এগিয়ে গিয়ে চালককে উদ্ধার করে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পাঠায়।উদ্ধারের সময় চালকের হাতে ভাতের চিহৃ দেখে,অপরদিকে থাকালে একটি বিরাণী প্যাকেটও দেখেন এবং অটোরিকশার চাকার চিহৃও দেখেন।এসব দেখেই উদ্ধারকারীরা ঘটনার বিষয়টি অনুমান করেছেন।
অজ্ঞান অটো চালকের অবস্হা গুরুত্বর দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফান করেন।সদরের চিকিৎসা চলাকালীন সময় রাত ৩টার দিকে মারা যান।
চকরিয়া থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল জব্বার বলেন,বিষয়টি কেউ থানায় অবগত করেনি।তবু আমরা যেটুকু শুনেছি,এনিয়ে রহস্য উৎঘাটন পূর্বক অপরাধিকে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চালাচ্ছি।মরদেহ যেহেতু সদর হাসপাতালে,সেহেতু ময়নাতদন্ত রিপোর্ট ফেলে,ঘটনা সম্পর্কে নিশ্চিত হব।তবে এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।
Ziaul Hoque


আরো বিভিন্ন বিভাগের খবর