শিরোনাম :
কোটা আন্দোলন : কক্সবাজারে আওয়ামীলীগ, জাসদ, জাতীয় পার্টির কার্যালয়, মসজিদ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাড়ি ভাংচুর; ছাত্রলীগ ৪ নেতাকে মারধর কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের বিক্ষোভ মিছিল চট্টগ্রামে কোটা আন্দোলনে সংর্ঘষে নিহত ছাত্র আকরামের বাড়ী কক্সবাজারের পেকুয়ায় পেকুয়ায় দূর্যোগ প্রস্তুতি ও সাড়াদান বিষয়ক কর্মশালা ক্রিস্টাল মেথ আইস উদ্ধার পর্যটন শহরেও উত্তাপ ছড়ালো কোটা আন্দোলনকারীরা উল্টো রথযাত্রা মহোৎসব ১৫ জুলাই টেকনাফে জেন্ডার ও বিরোধ সংবেদনশীল সাংবাদিকতা প্রশিক্ষণ মিয়ানমারের বিকট শব্দে আতংকে টেকনাফবাসী টেকনাফে ক্যান্সার রোগীর চিকিৎসার জন্য আর্থিক সাহায্যের আবেদন

শোক দিবসের বিশেষ বর্ধিত সভা আওয়ামীলীগের

নিউজ রুম / ৫ বার পড়ছে
আপলোড : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৪:২৫ অপরাহ্ন

বিডি প্রতিবেদক :
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদত বার্ষিকীর কর্মসূচী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কক্সবাজার জেলা শাখার এক বিশেষ বর্ধিত সভা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান চৌধুরীর সঞ্চালনায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন-জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান। বক্তব্য রাখেন-জেলা আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম, আশেক উল্লাহ রফিক এম.পি. এডভোকেট রনজিত দাশ, এডভোকেট মমতাজ আহমদ, অরুপ বড়–য়া তপু, আমিনুর রশিদ দুলাল, পৌর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর, যুবলীগ সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুর, শ্রমিক লীগের আহবায়ক সাহেদুল আলম রানা, মৎস্যজীবি লীগ আহবায়ক আবদুর রহিম মাষ্টার, পৌর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক।
সভায় উপস্থিত ছিলেন-জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যাপিকা এথিন রাখাইন, শাহ আলম চৌধুরী রাজা, জাফর আলম চৌধুরী, নুরুল আবছার চেয়ারম্যান, আবদুল খালেক, খোরশেদ আলম কুতুবী, হেলাল উদ্দিন কবির, এডভোকেট তাপস রক্ষিত, এস.এম. কামাল উদ্দিন, কমর উদ্দিন আহমদ, কাজী মোস্তাক আহমদ শামীম, এম.এ. মনজুর, ড. নুরুল আবছার, আদিল উদ্দিন চৌধুরী, আলহাজ্ব সোনা আলী, এ.টি.এম. জিয়া উদ্দিন, এড. সোলতানুল আলম, জি.এম. কাসেম, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, মৎস্যজীবি লীগ সদস্য সচিব মোহাম্মদ তৈয়ব, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি হাসান তারেক প্রমুখ।
সভায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়। কর্মসূচীর মধ্যে ১৪ আগষ্ট বিকাল ৩টায় শহীদ দৌলত ময়দানে আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ১৫ আগষ্ট ভোর ৬টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন। সকাল ৭.০ টায় কালো ব্যাজ ধারণ, সকাল ৮.০ টায় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, সকাল ৯.০ টায় খতমে কোরআন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং দুপুর ১২.৩০ মিনিটে কক্সবাজার পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডসহ জেলার আওতাধীন সকল উপজেলা ও সাংগঠনিক উপজেলায় গরীব, দুস্থ, এতিম ও জনসাধারণের মাঝে খাদ্য বিতরণ। এছাড়াও মাসব্যাপী জেলার সকল উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড পর্যায়ে জাতির জনকের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চে ভাষণ প্রচার, উপজেলা পর্যায়ে জেলা আওয়ামী লীগ গঠিত সাংগঠনিক টিমের প্রস্তুতিতে ব্যাপক ভাবে আলোচনা সভা, চিত্রাংকন, কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা, জাতির জনকের উপর রচিত বিভিন্ন সংগীত, দেশত্মবোধক সংগীত প্রচার ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। জেলার আওতাধীন সকল উপজেলাকে জেলা আওয়ামী লীগ গৃহীত কর্মসূচীর আলোকে বিভিন্ন অনুষ্ঠান আয়োজন করার অনুরোধ জানানো হয়।
বিশেষ বর্ধিত সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন-বিএনপি-জামায়াত দেশব্যাপী বিভিন্ন ভাবে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তারা দেশ, সরকার ও আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার মানসে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তারা দলীয় নেতাকর্মীদের হত্যা করে দেশের রাজপথ রক্তাক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ডে ব্যাহত করার উদ্দেশ্যে বিদেশী ষড়যন্ত্রকারীদের সাথে হাত মিলিয়ে বিশ্বব্যাপী চলমান মন্দাভাব দেশে কায়েম করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। নেতৃবৃন্দ বলেন-অতীতে যে কোন ষড়যন্ত্র আওয়ামী লীগ কঠোর হস্তে রাজপথে রাজনৈতিক ভাবে মোকাবেলা করেছে। ভবিষ্যতেও যে কোন সময় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা রাজপথে নেমে আসবে। কারো অসৎ উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীরা সফল হতে দেবে না। নেতৃবৃন্দ বিএনপিকে অরাজকতার পথ পরিহার করে স্বভাবিক রাজনীতিতে ফিরিয়ে আসার আহবান জানান এবং শোককে শক্তিতে রুপান্তর করার লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে শোক দিবসের কর্মসুচী সফল করার আহবান জানান।
বিশেষ বর্ধিত সভা পরবর্তী লালদীঘির দক্ষিণ পাড়ে অবস্থিত পুরাতন আওয়ামী লীগ অফিস চত্বরকে বঙ্গবন্ধু চত্বর হিসেবে ঘোষণা করেন। এতে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান।


আরো বিভিন্ন বিভাগের খবর